Foto

আইএমএফ থেকে ৬০০ কোটি ডলার নিচ্ছে পাকিস্তান


অর্থনৈতিক সংকট দূর করতে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) কাছ থেকে ৬০০ কোটি ডলার অর্থ সহায়তা নেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে পাকিস্তান। যদিও এ সহায়তার বিষয়ে এখনো আইএমএফের ব্যবস্থাপকদের অনুমতি লাগবে। আগামী তিন বছরে পাকিস্তানকে এ আর্থিক সহায়তা দেওয়া হবে। কয়েক মাস ধরেই এ বিষয়ে দুই পক্ষের আলোচনা চলেছে। বিবিসি অনলাইনের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।


বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ কম থাকায় এবং প্রবৃদ্ধি কমে যাওয়ায় বড় ধরনের অর্থনৈতিক সংকটে পাকিস্তান। এক বিবৃতিতে আইএমএফ জানায়, নিষ্প্রভ প্রবৃদ্ধি, উচ্চ মূল্যস্ফীতি সমস্যা, ঋণে জর্জরিত ও আন্তর্জাতিক অর্থনীতিতে নাজুক পাকিস্তান একটি চ্যালেঞ্জিং অর্থনৈতিক অবস্থার মধ্যে আছে।

সংস্থাটি জানায়, এই অর্থ সহায়তা কর্মসূচি ব্যবসায়িক পরিবেশের উন্নতি, আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে শক্তিশালী করা, স্বচ্ছতা বাড়ানো এবং সামাজিক ব্যয় রক্ষা করার মাধ্যমে শক্তিশালী প্রবৃদ্ধি অর্জনের লক্ষ্যে কর্তৃপক্ষকে কৌশলগত সহায়তা দেবে।

তবে সব সময়ই কঠোর শর্তে ঋণ দিয়ে থাকে আইএমএফ। আইএমএফের নতুন তহবিল প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানে কল্যাণমূলক রাষ্ট্র গড়ার ক্ষেত্রে অন্যতম বাধা হতে পারে বলে সতর্ক করেছেন বিশ্লেষকেরা। গত বছরের আগস্টে পাকিস্তানের ২২তম প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন সাবেক ক্রিকেটার ও পিটিআই–প্রধান ইমরান খান। এরপর থেকে অর্থনৈতিক সংকট মোকাবিলায় বন্ধুরাষ্ট্রগুলোর দ্বারস্থ হচ্ছেন তিনি। মূলত, আইএমএফের শর্তের কারণে সংস্থাটির কাছ থেকে অর্থ সহায়তা নেওয়ার পরিমাণ কমাতে চান ইমরান খান।

Facebook Comments

" বিশ্ব অর্থনীতি " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ