Foto

আর একটি মানুষের মৃত্যুও দেখতে চাই না - বেনিজর


র‌্যাবের মহাপরিচালক (ডিজি) বেনজীর আহমেদ বলেছেন, অভিযানের ভয়ে পুরান ঢাকার ব্যবসায়ীরা কেমিক্যাল সরিয়ে রাজধানীর বিভিন্ন আবাসিক এলাকায় নিয়ে রাখছেন বলে আমার কাছে গোয়েন্দা তথ্য রয়েছে। কেউ নিজ বাসায় আবার কেউ স্বজনদের বাসায় কেমিক্যাল রাখছেন।


বেনজীর বলেন, আগে পুরান ঢাকা ছিল টাইম বোমা। এখন সারা ঢাকাকে যেন টাইম বোমায় পরিণত করা না হয়। এ বিষয়টি খেয়াল রাখতে হবে। গতকাল সকালে রাজধানীর বকশীবাজারে র‌্যাব আয়োজিত এক বিশেষ সভায় তিনি এসব কথা বলেন। বেনজীর আহমেদ বলেন, পুরান ঢাকার মানুষ এতদিন টাইম বোমার ওপরে বসবাস করেছেন। চুড়িহাট্টার ঘটনায় যারা মারা গেছেন, তারাও টাইম বোমার পাশে বসবাস করতেন। আমরা তৃতীয় আর একটি ঘটনা চাই না। আমরা আর একটি মানুষের মৃত্যুও দেখতে চাই না।

এ সময় তিনি ব্যবসায়ীদের উদ্দেশে বলেন, পুরান ঢাকা থেকে কেমিক্যাল গোডাউন অপসারণ করার জন্য ১৫০ কোটি টাকার যে প্রজেক্টের কথা বলা হচ্ছে, তা সম্পন্ন হতে সময় লাগবে দুই বছর। কিন্তু আমাদের হাতে এত সময় নেই। দুই মাসের মধ্যে এর সমাধান হোক। এর জন্য ব্যবসায়ীদের প্রথাগত চিন্তার বাইরে গিয়ে কাজ করতে হবে।

র‌্যাব মহাপরিচালক বলেন, বাংলাদেশে একাধিক ইকোনমিক জোন গড়ে উঠেছে। অনেক ব্যবসায়ী নিজেদের উদ্যোগে তা গড়ে তুলেছেন। এমন ইকোনমিক জোন আপনারাও গড়তে পারেন। এক প্রশ্নের জবাবে বেনজীর বলেন, ব্যবসায়ীরা অভিযান বন্ধের দাবি জানাচ্ছেন। আমরা কি তা হলে আইন প্রয়োগ করা বন্ধ করে দেব? মানুষ হত্যা হবে আর আমরা কি আসামিকে গ্রেপ্তার করব না? তিনি বলেন, অভিযান চলবে। তবে আমাদের কোনো ব্যবসায়ী ভাই যেন অযথা হয়রানির শিকার না হন, সে বিষয়টি আমরা দেখব।

Facebook Comments

" জাতীয় খবর " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ