Foto

আ’লীগের ২০তম, মুস্তফা কামালের প্রথম


প্রায় সোয়া পাঁচ লাখ কোটি টাকা ব্যয়ের ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেট প্রস্তাব উপস্থাপন করতে যাচ্ছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। জাতীয় সংসদের বাজেট অধিবেশনে বৃহস্পতিবার বিকাল ৩টা থেকে বাজেট উপস্থাপন শুরু করবেন তিনি।


২০০৮ সালের জাতীয় নির্বাচনের পর তৎকালীন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত ২০০৯-১০ থেকে ২০১৮-১৯ টানা ১০ অর্থবছর বাজেট পেশ করেছেন। গত বছরের ৭ জুন মুহিত ২০১৮-১৯ অর্থবছরের জন্য ৪ লাখ ৬৪ হাজার ৫৭৩ কোটি টাকার সবশেষ বাজেট পেশ করেন।

টানা তৃতীয় মেয়াদে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সরকার সংসদে ২০১৯-২০ অর্থবছরের জন্য দেশের ইতিহাসে সর্ববৃহৎ জাতীয় বাজেট প্রস্তাব করতে যাচ্ছে।

গত জানুয়ারিতে অর্থ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পাওয়া মুস্তফা কামাল বৃহস্পতিবার দুপুরে সংসদ ভবনে মন্ত্রিসভার বিশেষ বৈঠক এবং রাষ্ট্রপতির অনুমোদন শেষে ৫ লাখ ২৩ হাজার ১৯০ কোটি টাকার বাজেট তুলে ধরবেন। যা সার্বিকভাবে দেশের ৪৮তম এবং আওয়ামী লীগ সরকারের ২০তম বাজেট হতে যাচ্ছে।

আগামী অর্থবছরের জন্য রাজস্ব আহরণের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ৩ লাখ ৭৭ হাজার ৮১০ কোটি টাকা, যা বিদায়ী অর্থবছরের তুলনায় ১৭.৯২ শতাংশ বেশি।

জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) ৩ লাখ ২৫ হাজার ৬০০ কোটি টাকার রাজস্ব আহরণের দায়িত্ব পাচ্ছে। এনবিআর-বহির্ভূত রাজস্বের লক্ষ্যমাত্রা সাড়ে ১৪ হাজার কোটি টাকা। কর-বহির্ভূত খাত থেকে আহরণ করা হবে ৩৭ হাজার ৭১০ কোটি টাকা। আর বিদেশি অনুদান হিসেবে আসবে ৪ হাজার ১৬৮ কোটি টাকা।

সবচেয়ে বেশি ৬৯ হাজার ২৬০ কোটি টাকা ব্যয় হবে সরকারি কর্মীদের বেতন-ভাতার পেছনে। উন্নয়ন বাজেট হবে ২ লাখ ২ হাজার ৭২১ কোটি টাকা, যা বিদায়ী অর্থবছরের তুলনায় ২১.৩৮ শতাংশ বেশি।

বাজেটে থাকা ঘাটতি ১ লাখ ৪১ হাজার ২১২ কোটি টাকা পূরণে সরকার বিদেশি উৎস থেকে ৬৩ হাজার ৮৪৮ কোটি এবং দেশি উৎস থেকে ৭৭ হাজার ৩৬৩ কোটি টাকা ঋণ নিতে যাচ্ছে।

Facebook Comments

" বিশ্ব অর্থনীতি " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ