Foto

কুকুর কামড়ালে যা করণীয়


কুকুরের কামড় অত্যন্ত যন্ত্রণাদায়ক এবং মারাত্মক একটা ব্যাপার। কুকুরের কামড় থেকে জলাতঙ্ক হওয়ার আশঙ্কা থাকে। রেবিস নামের এক ধরনের ভাইরাস থেকে এই জলাতঙ্ক রোগ হয়ে থাকে।


Hostens.com - A home for your website

জলাতঙ্ক স্নায়ুর একটি রোগ। রেবিস ভাইরাস কুকুরের লালা থেকে ক্ষতস্থানে লেগে সেখান থেকে শরীরে প্রবেশ করে। কুকুর কামড়ের পর যদি সময় মতো চিকিৎসা করানো না যায়, তাহলে জলাতঙ্কের কারণে মৃত্যু পর্যন্ত হতে পারে! এ কারণে কুকুরে কামড় দেওয়ার পর পর কিছু ব্যাপারে সকর্ত থাকতে হয়। তাহলে জলাতঙ্কের কোনও ঝুঁকি থাকে না।কাউকে কুকুরে কামড় দেওয়ার পর যা করবেন-

১. প্রথমেই ক্ষত স্থানটি কিছুক্ষণ চেপে ধরে রাখুন। এতে রক্ত পড়া বন্ধ হয়ে যাবে।

২. একটি পরিষ্কার তোয়ালে বা কাপড় দিয়ে ক্ষত স্থানটি ভাল করে পরিষ্কার করুন। এ সময় অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল সাবান ব্যবহার করতে পারেন।ক্ষত স্থান পরিষ্কার করার সময় খুব বেশি ঘষাঘষি করা ঠিক নয়।

৩. ক্ষত স্থানে অ্যান্টিবায়েটিক ক্রিম বা অয়েন্টমেন্ট লাগানোর পর একটা গজ দিয়ে ভাল করে বেঁধে ফেলুন। ক্ষত স্থান খোলা থাকলে জীবাণুর সংক্রমণের আশঙ্কা থাকে।

৪. প্রাথমিক চিকিৎসার পর যত দ্রুত সম্ভব চিকিৎসকের কাছে যেতে হবে। প্রয়োজনে টিটেনাস ইনজেকশন দিতে হবে। কুকুর কামড়ের ২৪ ঘণ্টার মধ্যে এই ইনজেকশন দেওয়া উচিত। রাস্তার কুকুরের ক্ষেত্রে চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী পরবর্তী পদক্ষেপ নিতে হবে।

Facebook Comments

" লাইফ স্টাইল " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ

Web Hosting and Linux/Windows VPS in USA, UK and Germany

Visitor Today : 468

Unique Visitor : 71479
Total PageView : 91542