Foto

খালেদাকে আদালতে নেওয়া হয়েছে জোর করে ।


বন্দি খালেদা জিয়াকে জোর করে কারাগারের অভ্যন্তরে স্থাপিত বিশেষ আদালতে জিয়া দাতব্য ট্রাস্ট মামলার শুনানিতে নেওয়া হয় বলে দাবি করেছে বিএনপি। দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বুধবার বিকালে এক আলোচনা সভায় বলেছেন, “সেখানে (আদালত) দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে জোর করে হুইল চেয়ারে করে নিয়ে আসা হয়েছে।” পুরান ঢাকার নাজিমউদ্দিন সড়কের যে কারাগারে বিএনপি চেয়ারপারসন বন্দি রয়েছেন, সেখানে আদালত বসিয়ে এদিন সকালেই হাজির করা হয় তাকে।


Hostens.com - A home for your website

ফখরুল বলেন, “আজকে কারাগারের অভ্যন্তরের আদালতে আমাদের আইনজীবীরা কেউ যান নাই। যে দুই-একজন গিয়েছিলেন, তারা দেখেছেন, একটা ছোট কুঠুরি, অন্ধকার গহ্বর। সেখানে বসবার পর্যন্ত কোনো জায়গা নাই। সেটাকে আদালতে রূপান্তরিত করা হয়েছে।”

কারাগারে ঢাকার জজ আদালতের বিশেষ এজলাস স্থাপনে সরকারের সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করে আসছেন বিএনপি নেতারা। তারা একে ক্যামরা ট্রায়াল আখায়িত করে বলেছেন, এটা সংবিধান পরিপন্থি।

অন্যদিকে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ৭৩ বছর বয়সী খালেদার বয়স বিবেচনা করে তার হাজিরা দেওয়ার সুবিধার জন্য সরকার এই পদক্ষেপ নিয়েছে।

ফখরুল এই বিচার নিয়ে সংশয় প্রকাশ করে বলেন, “তিনি (খালেদা জিয়া) সেখানে বলেছেন, আমার বিচার কী করবেন আপনারা করেন, ন্যায়বিচার হবে না আমি জানি। আপনারা আমাকে কারাগারের যে কক্ষে রেখেছেন সেখান রেখেই আপনারা বিচার করুন। আমি আপনাদের এখানে আর আসব না।”

কারাগারে আদালত বসানোর মধ্য দিয়ে সংবিধান লঙ্ঘনের অভিযোগ আবারও জানিয়ে বিএনপি মহাসচিব বলেন, “বাংলাদেশের সাধারণ যে কোনো নাগরিকের যে অধিকার আছে, সেই অধিকারেও এটা করা সম্ভব নয়।

“আমরা শুনেছি, স্বৈরাচারী দেশে এরকম ক্যামেরা ট্রায়াল হয়। আজকে স্বাধীন বাংলাদেশের অন্যতম জনপ্রিয় নেতা যিনি স্বাধীনতা যুদ্ধে ত্যাগ স্বীকার করেছেন, যিনি স্বৈরাচারের বিরুদ্ধে সংগ্রাম করেছেন, যাকে ফখরুদ্দিন-মইনুদ্দিন সরকার অন্যায়ভাবে কারাগারে আটক রেখেছিল, তাকে কারাগারের ভেতরে আদালত বসিয়ে বিচার করা হচ্ছে।”

জাতীয় প্রেস ক্লাব মিলনায়তনে নাগরিক ঐক্যের উদ্যোগে ইভিএম বর্জন, জাতীয় নির্বাচন ও রাজনৈতিক জোট শীর্ষক আলোচনা সভায় খালেদার বিচারে আদালত স্থানান্তর নিয়ে কথা বলেন ফখরুল।

নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্নার সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বিকল্প ধারার সভাপতি এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী, গণফোরামের সভাপতি কামাল হোসেন, জেএসডির সভাপতি আ স ম আবদুর রব, কল্যাণ পার্টির সভাপতি সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক দিলারা চৌধুরী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক আসিফ নজরুল বক্তব্য রাখেন।

Facebook Comments

" রাজনীতি " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ

Web Hosting and Linux/Windows VPS in USA, UK and Germany

Visitor Today : 266

Unique Visitor : 76646
Total PageView : 94618