Foto

ছোট্ট বোনটিকে বাঁচাতে গিয়ে দুই বোনও ডুবে গেল


চট্টগ্রামের পটিয়া উপজেলার কোলাগাঁও ইউনিয়নের কফিল উদ্দিন। কাজ করেন বন্দরশ্রমিক হিসেবে। চার কন্যার জনক। বড় মেয়ে সামিয়া আক্তারের বয়স ১১ বছর। দ্বিতীয় কন্যা সাদিয়া আক্তারের বয়স ৭ বছর, পড়ে কোলাগাঁও সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রথম শ্রেণিতে।


Hostens.com - A home for your website

একই বিদ্যালয়ে প্রাথমিকে পড়ুয়া তৃতীয় মেয়ে মুন্তাহিনের বয়স ৫ বছর। সবার ছোট আদরের মাইশার বয়স সবে ৩ বছর। এই চার বোনের তিনজনই সোমবার বিকেলে পানিতে ডুবে মারা গেছে। ছোট তিন মেয়ে সাদিয়া, মুন্তাহিন ও মাইশাকে হারিয়ে তাদের বাবা কফিল বাকরুদ্ধ।

কোলাগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান আহমদ নুর প্রথম আলোকে বলেন, সাদিয়া ও মুন্তাহিন বিদ্যালয় থেকে এসে খাওয়াদাওয়ার পর বিকেলে বাড়ির পাশে খেলতে যায়। সঙ্গে যায় ছোট বোন মাইশাও। খেলতে খেলতে ছোট বোন মাইশা বাড়ির পাশে পুকুরে নেমে ডুবে যায়। এ সময় মাইশাকে উদ্ধারের জন্য অন্য দুই বোন সাদিয়া ও মুন্তাহিন পুকুরে নামলে তারাও পুকুর থেকে উঠতে পারেনি। ছোট বোন মাইশার সঙ্গে ডুবে যায় সাদিয়া ও মুন্তাহিন।

দীর্ঘক্ষণ মেয়েদের না দেখে তাদের খুঁজতে থাকেন মা। পরে পুকুরপাড়ে গিয়ে দেখেন, তাঁর মেয়েদের মরদেহ পুকুরে ভাসছে। সাদিয়া-মাইশাদের মায়ের চিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে এসে পুকুর থেকে মৃতদেহগুলো উদ্ধার করে।

Facebook Comments

" জাতীয় খবর " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ

Web Hosting and Linux/Windows VPS in USA, UK and Germany

Visitor Today : 578

Unique Visitor : 76346
Total PageView : 94397