Foto

দ্বিতীয় দিনে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে অ্যাঞ্জেলিনা জোলি


হলিউডের অভিনেত্রী ও জাতিসংঘ শরণার্থী বিষয়ক সংস্থার (ইউএনএইচসিআর) বিশেষ দূত অ্যাঞ্জেলিনা জোলি দ্বিতীয় দিনের মতো কক্সবাজারের টেকনাফে রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করছেন। সফরের দ্বিতীয় দিনে অ্যাঞ্জেলিনা জোলি মঙ্গলবার উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করেন। সকাল সাড়ে ১০টার দিকে কুতুপালং এক্সটেনশন-৪ ক্যাম্পে পৌঁছান এবং সেখানকার শিক্ষা কেন্দ্রগুলো পরিদর্শন করেন তিনি।


পরে কুতুপালং ৩নং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের রিলিফ ইন্টান্যাশনাল পরিচালিত স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্র পরিদর্শন করেন। একই ক্যাম্পে নির্যাতিত রোহিঙ্গা নারীদের সঙ্গে কথা বলেন এবং তাদের দুর্দশার কথা শোনেন।

মঙ্গলবার দুপুরে কুতুপালং ৪নং রোহিঙ্গা ক্যাম্পে হোপ ফাউন্ডেশন পরিচালিত হাসপাতাল পরিদর্শন করার কথা রয়েছে জোলির। এ ছাড়া বিকেল ৩টার দিকে কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ডি-৫ ব্লকে প্রেস ব্রিফিংয়ে যোগ দেওয়ার রয়েছে তার।

কক্সবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইকবাল হোসেন জানিয়েছেন, অ্যাঞ্জেলিনা জোলি দুই দিনের সফরে কক্সবাজারে এসেছেন। সোমবার টেকনাফের চাকমারকুল রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন শেষে আজ উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা শিবির পরিদর্শন করছেন। সারাদিন উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা শিবিরে ব্যস্ত সময় পার করবেন তিনি।

বুধবার সকালে ঢাকায় আসবেন তিনি। সোমবার দুই দিনের জন্য সকাল সাড়ে ১০টার দিকে কক্সবাজার পৌঁছান তিনি। পরে দুপুর ২টার দিকে টেকনাফ উপজেলার হোয়াইক্যং ইউনিয়নের চাকমারকুল ২১নং রোহিঙ্গা শিবির পরিদর্শন করেন। সেখানে নির্যাতিত ও ধর্ষণের শিকার রোহিঙ্গা নারীদের সঙ্গে কথা বলেন এবং ভয়াবহ নির্যাতনের কাহিনি শোনেন।

জোলি ২০১২ সালে জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থার বিশেষ দূত হিসেবে নিযুক্ত হন। এর পর থেকে তিনি মানবাধিকার লঙ্ঘনের শিকার মানুষ বিশেষ করে নারীর প্রতি সহিংসতা ও যৌন নির্যাতনের প্রতিরোধে সোচ্চার ভূমিকা রাখছেন।

এর আগে গত বছরের মে মাসে কক্সবাজারের রোহিঙ্গা শিবির পরিদর্শন করেন ভারতের বিখ্যাত অভিনেত্রী সাবেক বিশ্বসুন্দরী প্রিয়াঙ্কা চোপড়া।

প্রিয়াঙ্কা জাতিসংঘের শিশু তহবিল ইউনিসেফের শুভেচ্ছাদূত হিসেবে বাংলাদেশে আসেন। বিদেশের আরও বহু তারকা কক্সবাজারের রোহিঙ্গা শিবির পরিদর্শন করেছেন।

Facebook Comments

" প্রতিবেশী " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ