Foto

পাকিস্তান দলকে যে বার্তা দিলেন সানিয়া মির্জা


বার্মিংহ্যামের এজবাস্টনে বুধবার নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে দুরন্ত জয় পায় পাকিস্তান। জয়ের পরে ভারতীয় টেনিস তারকা সানিয়া মির্জা টুইটারে লেখেন, ‘এমন অবিশ্বাস্য অসামান্য স্তরের খেলা হতে পারে! পাক দলকে এভাবেই অনুপ্রেরণামূলক বার্তা দেন পাকিস্তানের তারকা ক্রিকেটার শোয়েব মালিকের স্ত্রী সানিয়া। বেশ মন দিয়ে এবারের বিশ্বকাপ দেখছেন সানিয়া। এর আগে ভারত-পাকিস্তানের ম্যাচের সময় তৈরি হওয়া টিভি বিজ্ঞাপনের নিন্দা করেও টুইট করেছিলে তিনি।


তিনি লেখেন, ’’সীমান্তের দুই পারের তরফ থেকেই অস্বস্তিকর বিজ্ঞাপন। সত্যিই এই ম্যাচ নিয়ে আলাদা করে হাইপ দেওয়ার প্রয়োজন নেই। কিংবা ম্যাচটাকে নিয়ে আলাদা করে বিপণন করার কোনও প্রয়োজন নেই এই সব খারাপ বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে। ঈশ্বরের দোহাই, এটা শুধুই ক্রিকেট। এবং আপনি যদি মনে করেন এটা তার চেয়ে বেশি কিছু তাহলে জীবনটাকে চিনুন।’

এবারের বিশ্বকাপে শুরুটা ভালো হয়নি পাকিস্তা‌নের। প্রথম পাঁচ ম্যাচে তিনটিতে হার। ইংল্যান্ডের সঙ্গে ড্র। জয় কেবল একটিতে। কিন্তু রোববার লর্ডসে দক্ষিণ আফ্রিকা ও বুধবার বার্মিংহ্যামে নিউজিল্যান্ডের সঙ্গে জয়ের পরে দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়িয়েছে পাকিস্তান।

শনিবার আফগানিস্তানের সঙ্গে খেলা পাকিস্তানের। শেষ ম্যাচ বাংলাদেশের বিরুদ্ধে। বাংলাদেশও সাত পয়েন্ট পেয়েছে তাদেরই মতো। শ্রীলঙ্কা এক পয়েন্টে পিছিয়ে। তাদের হাতে এক ম্যাচ। সুতরাং পাকিস্তানকে কেবল জিতলেই হবে না। অন্য দলগুলির দিকেও তাকিয়ে থাকতে হবে।

এদিনের জয়ের পরে সরফরাজ বলেন, ’যখনই আমরা কিনারায় পৌঁছে যাই, তখনই আমরা আমাদের সেরা খেলাটা খেলি। এটা দারুণ দলগত প্রয়াস।’

শুরুতে পাকিস্তানের পরপর হার দেখে অনেকেরই মনে পড়েছে ১৯৯২ সালের কথা। সেবারও শুরুতে একেবারে ভাল খেলতে পারেনি পাকিস্তান। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তারাই বিজয়ী হয়। তবে ১৯৯২-এর সঙ্গে তুলনা নিয়ে তারা মাথা ঘামাচ্ছেন না, সেকথা পরিষ্কার করে দেন পাক অধিনায়ক। তিনি বলেন, ’আমরা ১৯৯২ সাল নিয়ে ভাবছি না। ম্যাচ বাই ম্যাচ যেতে চাই আমরা।’

Facebook Comments

" অন্যান্য খেলা " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ