Foto

‘ফেসবুকের কারণে স্বামী সন্দেহ করছে স্ত্রীকে, স্ত্রী স্বামীকে’


ফেসবুক ব্যবহারের কারণে শতকরা ৯০ ভাগ বিবাহবিচ্ছেদ হচ্ছে বলে দাবি করেছেন আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ। তিনি বলেন, ফেসবুকের কারণে স্বামী সন্দেহ করছেন স্ত্রীকে আর স্ত্রী স্বামীকে সন্দেহ করছেন। নিজেদের মধ্যে কলহ দিন দিন বাড়ছে।


গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে রাজধানীর আজিমপুর কমিউনিটি সেন্টারে কেন্দ্রীয় ১৪ দলের উদ্যোগে মাদকমুক্ত সমাজ ও নিরাপদ সড়কের দাবিতে অভিভাবক সমাবেশে এসব কথা বলেন হানিফ।

আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক বলেন, ছেলেমেয়েরা পড়াশোনায় মনোযোগ না দিয়ে ফেসবুকের দিকে ঝুঁকে পড়ছে। ছেলেমেয়েদের স্মার্টফোন কিনে দেওয়ার আগে অভিভাবকদের এ বিষয়গুলো চিন্তা করতে তিনি পরামর্শ দেন। তিনি বলেন, এক পরিবারে পাঁচজন সদস্য থাকলে পারিবারিক কথা আর হয় না, সেখানে দেখা যায় সবাই ফেসবুক নিয়ে বসে আছে।

যাঁরা ড্রাইভিং লাইসেন্স দেন, রোড পারমিট দেন, তাঁরাও সড়ক দুর্ঘটনার জন্য দায়ী বলে মন্তব্য করেন মাহবুব উল আলম হানিফ। তিনি বলেন, যেসব চালককে লাইসেন্স দেওয়া হয়, তাঁদের অধিকাংশই অশি‌ক্ষিত ও অর্ধশি‌ক্ষিত। কোনো আইন জানে না, ন্যূনতম জ্ঞান নেই। তাঁদের লাইসেন্স দেওয়ার কারণে সমস্যা হয়। প্রতিটি দুর্ঘটনার পর যানবাহনের মালিককেও আসামি করে মামলা দেওয়ার দাবি করে তিনি বলেন, তাহলে মালিকেরা আর অদক্ষ চালক নিয়োগ দেবেন না।

অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও কেন্দ্রীয় ১৪ দলের মুখপাত্র মোহাম্মদ নাসিম বলেন, ফেনীর মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান হত্যায় কারা জড়িত তা সবাই জানে। খুনিদের দ্রুত বিচার করতে হবে। এসব খুনির বিচার না হলে সমাজের অবক্ষয় দূর হবে না।

 

Facebook Comments

" রাজনীতি " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ