Foto

ভক্তদের ধৈর্য ধরতে বললেন তামিম


বিশ্বকাপে প্রথম তিন ম্যাচে বাংলাদেশের ড্যাশিং ওপেনার তামিম ইকবালের সংগ্রহ ১৬, ২৪ ও ১৯। সোজা কথায় বলা যায়, বৈশ্বিক আসরে এখনও নামের প্রতি সুবিচার করতে পারেননি বাংলাদেশ দলের এ ব্যাটিং নিউক্লিয়াস। তাই রানে ফেরার তাগিদ অনুভব করছেন তামিম। শ্রীলংকার বিপক্ষে ম্যাচেই রানে ফিরতে চান তিনি। সে জন্য অনুশীলন চালিয়ে যাচ্ছেন। ভক্তদের একটু ধৈর্য ধরার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।


আজ শ্রীলংকার বিপক্ষে ব্রিস্টলে মাঠে নামছেন টাইগাররা। ম্যাচটি সামনে রেখে রোববার দুপুর ১২টায় কার্ডিফ থেকে রওনা দিয়ে দেড়টায় ব্রিস্টলে পৌঁছেছে টিম টাইগার্স। তখন ঝুম বৃষ্টি। সেটি উপেক্ষা করেই টিম হোটেল থেকে বেরিয়ে দলের সদস্যরা ফিটনেস নিয়ে কাজ করেন। দীর্ঘ সময় ব্যাটিং অনুশীলন করেন তামিম ইকবাল। ইঙ্গিত দিলেন রানের জন্য কতটা মুখিয়ে আছেন তিনি।

এদিন বৃষ্টিতে আনুষ্ঠানিক অনুশীলন হয়নি বাংলাদেশ দলের। তবে ইনডোরে তামিম ঘণ্টাখানেক নিজ উদ্যোগে ব্যাটিং অনুশীলন করেন।

সোমবার সাকিব-সৌম্যরা ব্রিস্টলের সেন্ট্রাল উইকেটে অনুশীলন করেন। পাশের নেটে তামিম ইকবাল দেড় ঘণ্টা একনিষ্ঠ মনে ব্যাটিং করেন। ব্যাটিং কোচ নিল ম্যাকেঞ্জির সঙ্গে আলাদা করে সময় কাটান দেশসেরা ওপেনার। স্পিডআর্ম দিয়ে একের পর এক বাউন্স দিয়ে তামিমের শট ঝালিয়ে নেন ম্যাকেঞ্জি।

বাজে পারফরম্যান্সে ধৈর্য হারাচ্ছেন না তামিম ইকবাল। বিশ্বাস আছে নিজের ব্যাটিংয়ের ওপর। শ্রীলংকার বিপক্ষের ম্যাচেই রানে ফিরতে চেষ্টা করে যাচ্ছেন এ ওপেনার। তামিম মনে করেন, তিনিসহ যারা খারাপ সময়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছেন, তারা জ্বলে উঠলেই স্বরূপে ফিরবে বাংলাদেশ।

তামিম বলেন, ’যেহেতু এটা বিশ্বকাপ, সে কারণে মনে হয় ধৈর্য জিনিসটা কম হয়ে যায়। এটিই বলব- সবাইকে ধৈর্য ধরতে হবে। খালি আমার প্রতি না, সবার প্রতি।’

তামিম ইকবাল বলেন, ’বিশ্বকাপ একটা বড় স্টেজ। যেখানে সবাই পারফরম করতে চায়, সবাই ভালো করতে চায়। আমারও অনেক প্রত্যাশা আছে- আমি ভালো করতে চাই। অনেক সময় অনেক কিছু চেষ্টা করেও হয় না। আমাদের কাজ হলো চেষ্টা করতে থাকা, কোনো না কোনো সময় তো হবে। আমার ফোকাস পুরোপুরি অনুশীলনের দিকে। যে ভুলগুলো করছি যতটুকু মিনিমাইজ করা আর সে রকম স্টার্ট পেলে দেখা যাক ইনশাল্লাহ।’

ভক্ত-সমর্থকদের একটু ধৈর্য ধরার আহ্বান জানান তামিম। তিনি জানেন কীভাবে কামব্যাক করতে হয়। অভিজ্ঞতা আছে তার, ইংল্যান্ডের পরিবেশ চেনা। তামিম আশাবাদী তিনি তার মতো করেই ফিরবেন।

২০১৮ সালে বিশ্বক্রিকেটে ওপেনারদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি গড় ছিল তামিমের ব্যাটে; প্রায় ৫৯।

Facebook Comments

" ক্রিকেট নিউজ " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ