Foto

ম্যাককালাম অবসরে যাওয়ার কথা ভাবছেন


আইপিএলে এককালের অন্যতম বড় আকর্ষণ হলেও এবার ব্রেন্ডন ম্যাককালামকে কোনো ফ্র্যাঞ্চাইজিই কিনতে চায়নি। অভিমানে ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেট আর না খেলার ব্যাপারে চিন্তা করছেন এই কিউই ব্যাটসম্যান


২০০৮ সালে আইপিএলের ইতিহাসের প্রথম ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল কলকাতা নাইট রাইডার্স আর রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু। সে ম্যাচে চার–ছয়ের ফুলঝুড়ি ছুটিয়ে ১৫৮ রানের এক ইনিংস খেলেছিলেন ব্রেন্ডন ম্যাককালাম মাত্র ৭৩ বলে। সেই ইনিংসটা কেবল আইপিএলই নয়, টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটেরই অন্যতম সেরা ইনিংস হয়ে আছে। কিউই তারকার সে ইনিংসটি বিশ্বকে জানিয়ে দিয়েছিলেন টি-টোয়েন্টি খেলাটা আসলে কেমন! এক দশক পেরিয়ে আসার পর এখন সেই ম্যাককালামেরই আর দাম নেই। সম্প্রতি আইপিএলের নিলামে কোনো ফ্র্যাঞ্চাইজিই কেনেনি টি-টোয়েন্টি ইতিহাসের অন্যতম মারকুটে এই ব্যাটসম্যানকে। ফলে অভিমানে ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগে আর না খেলার ব্যাপারটি ভাবছেন তিনি।

আইপিএলের ১১টা মৌসুমে ম্যাককালাম কলকাতা ছাড়াও খেলেছেন রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু, কোচি টাসকার্স কেরালা, গুজরাট লায়নস, চেন্নাই সুপার কিংসের মতো ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলোতে। গত মৌসুমে বেঙ্গালুরুর হয়ে খেললেও সেই বিধ্বংসী ম্যাককালামকে দেখা যায়নি মোটেও। ৬ ম্যাচে মাত্র ১২৭ রান করা ম্যাককালামকে এবার তাই ছেড়ে দিয়েছে বেঙ্গালুরু। অন্য কোনো ফ্র্যাঞ্চাইজিও দলে নেয়নি এই ব্যাটসম্যানকে। এবার না খেলতে পেরে একধরনের অভিমানই হয়েছে তাঁর, ‘আমি অনেক ভাগ্যবান যে আইপিএলের মতো টুর্নামেন্টে ১১ মৌসুম খেলতে পেরেছি। তবে এখন হয়তো সময় এসেছে খেলোয়াড়ের ভূমিকা ছাড়াও অন্য কোনো ভূমিকা পালন করার ব্যাপারে চিন্তা করার।’
আইপিএলের নিলামে কিউই তারকাদের মধ্যে শুধু মার্টিন গাপটিল আর লকি ফার্গুসনকে কিনেছে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ আর কলকাতা নাইট রাইডার্স। এই দুজন ছাড়াও অন্য কিউই তারকাদের মধ্যে এবার কেন উইলিয়ামসন (সানরাইজার্স হায়দরাবাদ), টিম সাউদি ও কলিন ডি গ্র্যান্ড হোম (রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু), অ্যাডাম মিলনে ও মিচেল ম্যাকক্লেনাঘান (মুম্বাই ইন্ডিয়ানস), কলিন মুনরো ও ট্রেন্ট বোল্ট (দিল্লি ক্যাপিটালস), মিচেল স্যান্টনার (চেন্নাই সুপার কিংস), ইশ সোধি (রাজস্থান রয়্যালস) থাকছেন। তাঁদের শুভকামনা জানিয়েছেন ম্যাককালাম, ‘আমি অনেক খুশি যে বেশ কিছু কিউই খেলোয়াড় এবারের আইপিএলে খেলছে। মাঝে মধ্যে এ রকম হয় (নিলামে অবিক্রীত থাকা), এটা অস্বাভাবিক কিছু নয়। আমি অবশ্যই এটা নিয়ে চিন্তিত নই। তবে আপনি জানেন না ভবিষ্যতে কী অপেক্ষা করছে আপনার জন্য!’
রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু ছাড়াও কিছুদিন আগে পাকিস্তানের ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ লাহোর কালান্দার্সও ম্যাককালামের সঙ্গে চুক্তি বাতিল করেছে। ম্যাকাকালামের কষ্ট হওয়াটাই স্বাভাবিক! সর্বশেষ মৌসুমে বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি লিগ বিপিএলেও রংপুর রাইডার্সের হয়ে খেলে খুব বেশি কিছু করতে পারেননি। ১২ ম্যাচে করেছিলেন ২৮১ রান। স্ট্রাইকরেট ছিল ১১৪-এর কিছু বেশি।
বিদায়ের ঘণ্টা ভালোভাবেই শুনতে শুরু করেছেন ম্যাককালাম।

Facebook Comments

" ক্রিকেট নিউজ " ক্যাটাগরীতে আরো সংবাদ